Home আন্তর্জাতিক সংবাদ স্টিফেন হকিং-এর মতে প্রযুক্তি মানব জাতির ধ্বংসের মূল হবে

স্টিফেন হকিং-এর মতে প্রযুক্তি মানব জাতির ধ্বংসের মূল হবে

বর্তমান সময় মানবসভ্যতা সবচেয়ে ভয়ঙ্কর সময়ে আছে বলেই মনে করেন আর এরকমই মন্তব্য তার, তিনি আর কেউ নন তিনি বর্তমান সময়ের শ্রেষ্ঠ বিজ্ঞানী স্টিফেন হকিং বলেছেন। এছাড়াও তার আশা এ চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করতে সক্ষম হবে মানব জাতি। মানবসভ্যতার ধ্বংসের কারন হতে পারে রোবট আর এরকম বলেও সতর্ক করেছিলেন এই বিজ্ঞানী।

প্রযুক্তির বিকাশের ব্যাপারে বিজ্ঞানী স্টিফেন হকিং বলেছেন, মানবসভ্যতার ভবিষ্যতের জন্য প্রযুক্তিতে অবশ্যই নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার বিপদ নিয়েও এর আগে কথা বলেছেন হকিং। তার মতে, এ বিপদ থেকে উদ্ধারের একমাত্র আশা বৈশ্বিকভাবে তা নিয়ন্ত্রণ।
তিনি বলছেন, যুক্তি এবং বুদ্ধিমত্তা ছাড়া নিউক্লিয়ার এবং বায়োলোজিক্যাল যুদ্ধের যে হুমকি রয়েছে তা থেকে বাঁচতে আর কোনো রাস্তা নেই মানজাতির জন্য। বর্তমানে মানবসভ্যতার প্রযুক্তি এতটাই এগিয়ে গেছে যে, এ সংক্রান্ত আগ্রাসন আমাদের নিজেদেরই ধ্বংস করে দিতে পারে।

তিনি বলেছেন, আমরা এমন প্রযুক্তি তৈরি করেছি যা আমাদের ধ্বংস করতে পারে আর এখন আমাদের এমন একটা সময়ের জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে যেখানে রোবট আমাদের প্রাত্যহিক জীবনের অনেক কাজ করে দেবে। এরকম ও হতে পারে কয়েক শতকে বিভিন্ন নক্ষত্রে আমরা বসতি স্থাপন করবো। কিন্তু এখন আমাদের কেবল একটিই গ্রহ রয়েছে আর তা রক্ষায় আমাদের সম্মিলিতভাবে কাজ করতে হবে।

গত সেপ্টেম্বরে এই পদার্থবিদ বলেছিলেন, যুদ্ধ ও নানা রোগের কারণে পৃথিবী দিন দিন বিপজ্জনক একটা জায়গায় পরিণত হচ্ছে।

এছাড়াও এই বিজ্ঞানীর মতে মহাবিশ্বের অন্য কোথাও যদি মানুষ যেতে না পারে তবে মানবসভ্যতার আর কোনো ভবিষ্যত নেই। আর তাই তার এই সতর্কবাণী।